মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৭:৩০ পূর্বাহ্ন Bengali BN English EN Hindi HI
সর্বশেষ ::
সিরাজদিখানে সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে সাংবাদিক লাঞ্ছিত মুন্সীগঞ্জে বাংলা টিভির বর্ষপূর্তি উদযাপন করা হ‌য়ে‌ছে। লৌহজংয়ে প্রচারণাকে কেন্দ্র করে মুক্তি যোদ্ধাদের গাড়িতে হামলা,গাড়ি ভংচুর দুই মুক্তিযোদ্ধাসহ আহত ১১ কাপ পিরিচের উঠান বৈঠকে জনতার ঢল সিরাজদিখান রিপোর্টার্স ইউনিটির সাথে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীর মতবিনিময় সভা লৌহজং হাড্ডা হাড্ডি লড়াইয়ে এগিয়ে রশিদ শিকদার লৌহজংয়ে দোয়াত কলমের উঠান বৈঠক জনশ্রত সাংবাদিকের উপর হামলার প্রতিবাদে সিরাজদিখান রিপোর্টার্স ইউনিটির মানববন্ধন সাংবাদিকদের উপর সন্ত্রাসী হামলার বিচারের দাবিতে মুন্সীগঞ্জে মানববন্ধন মুন্সীগঞ্জে ভূমি অফিসার্স কল্যাণ সমিতির বার্ষিক সভা
ব্রেকিং নিউজ :
মুন্সিগঞ্জে ভোটকেন্দ্রে অনিয়মের চিত্র ধারণ করায় হামলায় সাংবাদিক আহত, ক্যামেরা ভাঙচুর
/ ৮ পঠিত:-
আপডেট সময় :- সোমবার, ২৯ এপ্রিল, ২০২৪, ৫:১৮ অপরাহ্ন

রু‌বেল মাদবর, মুন্সীগঞ্জঃ

মুন্সিগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলার আড়িয়ল ইউনিয়ন পরিষদ উপ নির্বাচনে অনিয়মের চিত্র ধারণ করতে গিয়ে প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা হামলা চালিয়েছে সাংবাদিকদের উপর।

এঘটনায় বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ২৪ এর চিত্র সাংবাদিক আমির হোসাইন(২৮) আহত হয়েছে, ভাংচুর করা হয়েছে তার ক্যামেরা। ওই নির্বাচনে আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী দুলাল হাওলাদার এই হামলার সূত্রপাত করেন বলে অভিযোগ।

রোববার বেলা আড়াইটার দিকে ইউনিয়নটির উত্তর কুরমিরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। আহত আমি বর্তমানে মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আহত সাংবাদিক আমির হোসেন জানান, সকাল থেকেই প্রতিটি কেন্দ্রে আমরা চিত্র ধারণ করছিলাম। দুপুরে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বশির আহমেদ ওই কেন্দ্রটি পরিদর্শনে আসেন।

কেন্দ্রে যাওয়ার পর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জাল ভোট দেয়ার সময় একজন নারীকে হাতেনাতে আটক করেন। সেই ছবি নেওয়ার সময় পাশ থেকে আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী দুলাল হাওলাদার প্রথমে আমাকে বাঁধা দেন এবং পরে ক্ষিপ্ত হয়ে তিনি আমাকে মারতে তেড়ে আসেন।

এরপর নির্বাচন কর্মকর্তা কেন্দ্র ত্যাগ করার সাথে সাথে ১০০-২০০ লোক কেন্দ্র দখল করার উদ্দেশ্যে কেন্দ্রে ঢুকে পড়েন। আমি সেই চিত্র ধারণ করতে থাকলে চেয়ারম্যান প্রার্থী দুলাল ‘ওই শালারে ধর’, ‘ওরে মার’ বলে চিৎকার চেচামেচি করে আমাকে মারধর শুরু করেন।

এসময় তার সাথে থাকা ২০-৫০ জন মিলে আমার হাতে থাকা ক্যামেরা ভাঙচুর চালায় এবং আমার মাথায় কিল-ঘুষি দেয় এবং লাঠি দিয়ে গুরুতর আঘাত করে আমাকে অজ্ঞান করে ফেলে রেখে যায়। খবর পেয়ে আমার অন্য সহকর্মীরা উদ্ধার করে আমাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।’

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বশির আহমেদ হামলার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ‘আমি ওই কেন্দ্র থেকে বের হওয়ার পর ভোটকেন্দ্রের বাইরে আমার চোখের সামনে সাংবাদিকের উপর হামলার ঘটনা ঘটে। তবে ভোটকেন্দ্রে এর প্রভাব পড়েনি। এ ঘটনায় আইন মোতাবেক ব্যবস্থা নেবে প্রশাসন’।

টংগিবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক কানিজ ফাতেমা জানান, আহতের মাথার পেছনে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে দুলাল হাওলাদারের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।
মুন্সিগঞ্জ পুলিশ সুপার আসলাম খান বলেন, এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ পেয়েছি। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এদিকে এঘটনায় রাত ৮টায় আহত চিত্র সাংবাদিক আমির হোসেন কে মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে দেখতে আসেন জেলা প্রশাসক আবু জাফর রিপন। হামলার ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ আশ্বাস দেন তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
আমাদের ফেসবুক পেইজ

Recent Comments